নলডাঙ্গায় মরদেহের ছবি ফেসবুকে ভাইরাল! 2

নলডাঙ্গায় মরদেহের ছবি ফেসবুকে ভাইরাল!

নাটোরের নলডাঙ্গায় অজ্ঞাত এক মরদেহ বহনের ছবি ফেসবুকে ভাইরাল হয়েছে। সাধারণত মরদেহ বহনের সময় কফিন ব্যাগ ব্যবহার করে পুলিশ। সেই ব্যাগে করেই মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

কিন্তু শনিবার সকালে উল্টোচিত্র দেখা গেল নলডাঙ্গায়। অজ্ঞাত প্রতিবন্ধি ব্যক্তির মরদেহ দড়ি দিয়ে বেঁধে বাঁশ দিয়ে টেনে নিয়ে যাচ্ছে দুই যুবক। এসময় মরদেহটির পা মাটি ছুঁয়ে যাচ্ছে। মরদেহের প্রতি এমন অসম্মানজনক ছবিটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ার পর রেলওয়ে পুলিশের কাণ্ডজ্ঞান এবং মানবিকতা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন অনেকে।

নাইম পারভেজ অপু নামে এক ব্যক্তি ছবিটা তার ফেসবুক ওয়ালে পোস্ট করে লিখেছেন, ছবিটা দেখে মেজাজ খারাপ হয়ে গেল। এর বিচার চাই। সালেহীন বিপ্লব নামে একজন পোস্ট করেন, মরদেহের প্রতি এমন অসম্মান দেখে মানুষের মানবিকতা নিয়ে প্রশ্ন উঠে। এটা কাম্য নয়। বাসুদেবপুর বাঙ্গাল রেলওয়ে ব্রিজের নিচ থেকে সান্তাহার রেলওয়ে পুলিশ মরদেহটি উদ্ধার করে। কিন্ত একটা মৃতদেহ দড়ি দিয়ে বেঁধে এভাবে ঝুলিয়ে নিতে বিবেক বাধলো না ওদের? ওরা কি এ দেশের নাগরিক নয়?

এবিষয়ে সান্তাহার রেলওয়ে পুলিশের উপ-পরিদর্শক বিশ্বনাথ কুমার বলেন, জনবল না থাকার কারণে স্থানীয় দুই যুবককে দিয়ে মরদেহ উদ্ধার করা হয়। পরে অবশ্যই আমরা কফিন ব্যাগে মরদেহ ভরে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে প্রেরণ করেছি।

নলডাঙ্গা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা হুমায়ন কবির জানান, সকালে স্টেশনের ২৩৬ নম্বর ব্রীজের নিচে পানিতে ভাসমান অবস্থায় মরদেহটি দেখতে পেয়ে পুলিশে খবর দেয় স্থানীয়রা। পরে নলডাঙ্গা থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে সান্তাহার জিআরপি পুলিশে খবর দেয়। জিআরপি থানা পুলিশ মরদেহটি উদ্ধার করে সদর মর্গে প্রেরণ করে। মরদেহের পরিচয় এখনো জানা যায়নি।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

15 − six =