পাঁচ জেলায় পাঁচ মরদেহ উদ্ধার 2

পাঁচ জেলায় পাঁচ মরদেহ উদ্ধার

ঢাকার সবুজবাগ, মাদারীপুরের কালকিনি, ময়মনসিংহের ভালুকা, যশোর ও বরগুনায় মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে।

সবুজবাগ : ঢাকার দক্ষিণগাঁও এলাকার একটি বাসা থেকে রেহেনা খাতুন (২৩) নামে এক ছাত্রীর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। (২৮ অক্টোবর)  সোমবার ভোর ৬টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। পরে ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহ ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়।

রেহেনা খাতুন সাতক্ষিরা সদর উপজেলার শিয়ালডাঙ্গা গ্রামের মৃত রফিকুল ইসলামের মেয়ে। তিনি দক্ষিণগাঁওয়ের পশ্চিমপাড়ার ১ নম্বর রোডের ৪৪/৭ নম্বর বাসায় ভাড়া থাকতেন।

সবুজবাগ থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মো. মোফাজ্জল হোসেন জানান, খবর পেয়ে ওই বাসার পঞ্চম তলার ফ্ল্যাটের বাথরুমের শাওয়ারের লোহার পাইপের সঙ্গে ওড়না দিয়ে গলায় ফাঁস লাগানো অবস্থায় তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়। ওই বাসাতেই তিনি ভাড়া থাকতেন। পরে ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহ ঢামেক হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়।

মাদারীপুর : জেলার কালকিনি উপজেলার শিকারমঙ্গল এলাকা থেকে অজ্ঞাতপরিচয় এক যুবকের মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। (২৮ অক্টোবর) সোমবার বেলা ১১টার দিকে পৌরসভার ৩ নম্বর ওয়ার্ডের শিকারমঙ্গল এলাকার রাস্তার পাশের একটি ডোবা থেকে উদ্ধার করা হয়। পুলিশ জানায়, স্থানীয়রা মরদেহটি দেখে থানায় খবর দিলে কালকিনি পুলিশ গিয়ে উদ্ধার করে। তবে নাম পরিচয় পাওয়া যায়নি।

কালকিনি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোফাজ্জেল হোসেন জানান, মরদেহটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। নাম পরিচয় শনাক্তের চেষ্টা চলছে।

ময়মনসিংহ : জেলার ভালুকা উপজেলায় রফিক (৩৫) নামের এক যুবকের মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। (২৮ অক্টোবর) সোমবার দুপুরে উপজেলার তামাট এলাকার একটি ধানক্ষেত থেকে মরদেহটি উদ্ধার করা হয়।

ভালুকা মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ মাঈন উদ্দিন জানান, ওই এলাকার সড়কের পাশের ধানক্ষেতে মরদেহটি দেখতে পেয়ে স্থানীয়রা পুলিশকে খবর দেয়। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে মরদেহ উদ্ধার করে।

যশোর : জেলায় রাকিব সরদার (১৫) নামের এক কিশোরের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। (২৮ অক্টোবর) সোমবার সকালে শহরের জেলা জজ আদালতের পরিত্যক্ত ভবনের প্রাচীরের পাশ থেকে মরদেহটি উদ্ধার করা হয়।

রাকিব পাবনার সুজানগর উপজেলার বংকুলিয়া গ্রামের সাইন সাগরের ছেলে। তবে পরিত্যক্ত ওই ভবনে পালিত বাবা মাসুম শেখের সঙ্গে বসবাস করতো।

যশোর কোতোয়ালি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি-তদন্ত) সমীর কুমার সরকার বলেন, স্থানীয়দের মাধ্যমে খবর পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে রাকিবের মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে। এছাড়া পুলিশের একাধিক কর্মকর্তা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

বরগুনা : সদর উপজেলায় ইমরান হোসেন নামে এক কিশোরের ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। মৃত ইমরান উপজেলার ৮ নম্বর সদর ইউনিয়নের কোরক এলাকার খলিল ফিটারের ছেলে।

(২৮ অক্টোবর) সোমবার সকাল সাড়ে ৬টার দিকে ওই এলাকার মোহাম্মাদিয়া জামে মসজিদের চালের সঙ্গে ঝুলন্ত অবস্থায় কিশোরটির মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

বরগুনা থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) সোলায়মান জানান, মরদেহ উদ্ধার করে বরগুনা জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। ময়নাতদন্ত প্রতিবেদন পেলে মৃত্যুর সঠিক কারণ জানা যাবে।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

thirteen + fourteen =