প্রতীকী ছবি

গাজিপুরে কিশোরীকে গণধর্ষণ

শহিদুল ইসলাম : গাজীপুরের কামারজুরি এলাকায় কিশোরীকে গণধর্ষণের অভিযোগে উঠেছে ।

ধর্ষণের পর তাকে স্যাভলন খাওয়াইয়ে হত্যার চেষ্টার করা হয়েছে বলে অভিযোগ কিশোরীর পরিবারের ।  তবে, অভিযুক্ত ধর্ষণকারীর পরিবারের দাবী প্রেমের সর্ম্পক মেনে না নেয়া ফাঁসানো হয়েছে । দ্রুত সময়ের মধ্যে ধর্ষণকারীদের গ্রেফতারসহ দৃষ্টান্তমুলক শাস্তির ব্যবস্থা গ্রহনের আশ্বাস দিয়েছে পুলিশ ।

গাজীপুর মহানগরের গাছা থানাধীন কামারজুরি এলাকার ৭ম শ্রেনীতে অধ্যয়ণরত এক কিশোরীকে বাসা থেকে ডেকে নিয়ে পাশের নির্জ্ন স্থানে ৪/৫ জনে মিলে পালাক্রমে ধর্ষণ করে ।

গাজীপুরের কামারজুরি এলাকার জালাল উদ্দিনের ছেলে রাসেল হোসেন ওরফে বাবুর সাথে দুই বছর আগে থেকে ওই কিশোরীর প্রেমের সর্ম্পক তৈরি হয় ।

কিছু দিন যাবৎ বিয়ের জন্য চাপ দিলে মঙ্গলবার রাতে বাসা থেকে ডেকে নিয়ে বাবু ও তার সহযোগীরা পালাক্রমে ধর্ষণ করে । পরে হত্যার উদ্দেশ্যে স্যাভলন খাওয়াইয়ে বাসার সামনে এনে ফেলে রেখে পালিয়ে যায় । স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে গাজীপুর শহীদ তাজ উদ্দিন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করে ।

এদিকে, রাসেল হোসেন ওরফে বাবুর পরিবারের দাবী, তাকে ফাসানোর উদ্যোশে মিথ্যা অভিযোগ তুলা হয়েছে ।

দেশের এই ক্রান্তি মুহেুর্তে এ ধরণের কাজে জড়িতের দ্রুত গ্রেফতারসহ দৃষ্টান্তমুলক শাস্তির ব্যবস্থাগ্রহনের আশ্বাস দিয়েছেন, গাছা থানার ওসি ।

ওই কিশোরীর পরিবারের নিরাপত্তা নিশ্চিত করাসহ সংশ্লিষ্টরা আইনগত সবধরণের সহয়তা দিবে এমটাই প্রত্যাশা স্থানীয়দের।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

twenty − 12 =