সুনামগঞ্জে জ্বর কাশি ও শ্বাসকষ্টে নারীর মৃত্যু 2

সুনামগঞ্জে জ্বর কাশি ও শ্বাসকষ্টে নারীর মৃত্যু

সুনামগঞ্জে জ্বর কাশি ও শ্বাসকষ্টে স্ত্রীর মৃত্যুর পর স্বামীকে কোভিট-১৯ এর পরীক্ষার জন্য সিলেট পাঠিয়েছে জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ।

সোমবার দুপুরে সুনামগঞ্জের সিভিল সার্জন কার্যালয়ের দেওয়া এক প্রেস বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে এমন তথ্য জানান সিভিল সার্জন ডা. মো. শামস উদ্দিন।

প্রেসবিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, সোমবার ভোর ৫ টা ৩০ মিনিটে সুনামগঞ্জের ৫৫ বছর বয়সী এক নারীকে সুনামগঞ্জ ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট হাসপাতালের জরুরী বিভাগে নিয়ে আসেন স্বজনরা।

কর্তব্যরত চিকিৎসকরা রোগীকে পরীক্ষা করে মৃত ঘোষণা করেন এবং স্বজনরা মরদেহ বাসায় নিয়ে যান। পরে বিষয়টি সিভিল সার্জনের দৃষ্টিগোচর হলে তিনি সিনিয়র কন্সাল্ট্যান্ট মেডিসিনের নেতৃত্বে ডেপুটি সিভিল সার্জন, মেডিকেল অফিসার ও স্বাস্থ্য সহকারিকে সদস্য করে একটি তদন্ত টিম গঠন করেন ও তাদের বিষয়ে খোঁজ নিয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য নির্দেশ প্রদান করেন।

পরে সিভিল সার্জনের নির্দেশে তদন্ত টিম রোগীর বাড়িতে যান কিন্তু ইতিমধ্যে রোগীর দাহ সম্পন্ন হয়ে যাওয়ায় রোগীর পুনঃমূল্যায়ন পরীক্ষা সম্ভব হয়নি। জিজ্ঞাসাবাদে মৃত নারীর স্বামী জানান, তিনি দীর্ঘদিন ধরে যাবত উচ্চ রক্তচাপে ভুগছিলেন এবং অনিয়মিত ওষুধ সেবন করতেন। গেল এক সপ্তাহ ধরে তার স্ত্রী জ্বর, কাশি ও শ্বাসকষ্ট রোগে ভুগছিলেন।

প্রেসবিজ্ঞপ্তিতে আরো বলা হয়, মৃত নারী স্বামীও গত কয়েকদিন ধরে জ্বর, কাশিতে এবং বর্তমানে ভয়ে আছেন এবং তিনি সিলেট গিয়ে চিকিৎসা ও কোভিট-১৯ এর প্রয়োজনীয় পরীক্ষা-নিরীক্ষার জন্য ইচ্ছা পোষণ করেছেন। তদন্ত কমিটিও এ ব্যাপারে সম্মত হয়ে যেহেতু স্ত্রী মৃত্যুবরণ করেছেন তাই তার স্বামীর নমুনা সংগ্রহ করে কোভিট-১৯ এর প্রয়োজনীয় পরীক্ষা দরকার। তাই সিভিল সার্জনের নির্দেশে দ্রুত সময়ের মধ্যে রোগ নির্ণয়ের উদ্যোশে মৃত নারীর স্বামীকে সিলেটের শহীদ শামসউদ্দিন হাসপাতালের করোনা আইসোলেশন সেন্টারে প্রেরণ করার প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা করা হয়।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

five × five =