গোবিন্দগঞ্জ থানা

১৮ মামলার আসামি বন্দুকযুদ্ধে নিহত

গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জে হাতকড়াসহ ছিনিয়ে নেয়া ১৮ মামলার আসামি চিনু মিয়া পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত হয়েছেন। পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে অস্ত্র ও গুলি উদ্ধার করেছে। এছাড়া এ ঘটনায় পুলিশের দুই সদস্য আহত হয়েছেন।

শুক্রবার দিবাগত রাত সাড়ে ৩টার দিকে গোবিন্দগঞ্জের কাটাখালির বাধের ওপর এ ঘটনা ঘটে।

চিনু মিয়া (৩৮) গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার দরবস্ত ইউনিয়নের বিশ্বনাথ গ্রামের মৃত নুরু ইসলামের ছেলে। চিনু মিয়ার বিরুদ্ধে অস্ত্র আইন, হত্যা চেষ্টা, প্রতারণা, চাঁদাবাজি, অগ্নিসংযোগ ও নাশকতাসহ ১৮টি মামলা আদালতে বিচারাধীন।

গোবিন্দগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্ত (ওসি) একেএম মেহেদী হাসান ঘটনা নিশ্চিত করে জানান, হাতকড়াসহ ছিনিয়ে নেয়া আসামি চিনু বৃহস্পতিবার গভীর রাতে চর এলাকায় পালিয়ে যাচ্ছিলো। গোপন খবর পেয়ে পুলিশ কাটাখালি এলাকায় অবস্থান নেয়। চিনু ও তার সহযোগিরা কাটাখালিতে পৌঁছলে পুলিশ তাদের আটকের চেষ্টা করে। এ সময় পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি ছুঁড়ে তারা। পরে পুলিশও পাল্টা গুলি ছুঁড়ে। এক পর্যায়ে গুলিবিদ্ধ হয়ে ঘটনাস্থলেই মারা যায় চিনু। ঘটনাস্থল থেকে অস্ত্র ও গুলি উদ্ধার করা হয়েছে। আহত দুই পুলিশের সদস্যকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

এরাআগে, বুধবার (৭ আগস্ট) রাত ১০টার দিকে দরবস্ত ইউনিয়নের বিশ্বনাথ গ্রামের বাধের ওপরে পুলিশের কাছ থেকে হাতকড়াসহ চিনুকে ছিনিয়ে নেয় তার সহযোগি ও স্বজনরা। এ সময় পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে চিনুর সহযোগী নুর আলম ও তাজনুরকে আটক এবং দুটি মোটরসাইকেলে উদ্ধার করে।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

six + 5 =