১২ জনের প্রাণ নিয়ে গেলো বুলবুল 2

১২ জনের প্রাণ নিয়ে গেলো বুলবুল

ঘূর্ণিঝড় বুলবুলে গাছ ও ঘর চাপা পড়ে এবং অসুস্থ হয়ে বাগেরহাট, বরিশাল, পটুয়াখালী, গোপালগঞ্জ, বরগুনা, খুলনা ও মাদারীপুর এবং পিরোজপুরে ১২ জন নিহত হয়েছে। তবে, সরকারিভাবে দুইজনের মৃত্যুর কথা বলা হয়েছে। এদিকে, বুলবুলের আঘাতে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে হাজার হাজার ঘরবাড়ি। সড়কের ওপর গাছ ভেঙে পড়ায় যোগাযোগ বন্ধ হওয়ার পাশাপাশি, অনেক এলাকায় বাঁধ ভেঙে লোকালয়ে পানি ঢুকে পড়েছে।
কিছুটা দুর্বল হয়ে ঘূর্ণিঝড় ‘বুলবুল’ বাংলাদেশের উপকূলে আঘাত হানলেও লণ্ডভণ্ড হয়ে যায় উপকূলীয় সাতক্ষীরার জেলার অনেক এলাকা। ১৭ হাজার বাড়ি পুরোপুরি বিধ্বস্ত আর আংশিকভাবে ভেঙে পড়েছে ৩৩ হাজার ঘর। ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে আড়াই লাখ মানুষ। ঝড়ের তাণ্ডবে ক্ষতি হয়েছে মাছের ঘের ও ধান ক্ষেতের। সড়কে গাছ ভেঙে পড়ায় যোগাযোগ বন্ধ রয়েছে অনেক এলাকায়। দুর্যোগপূর্ণ আবহাওয়ায় ব্যাহত হচ্ছে উদ্ধার কাজ।

ঘূর্ণিঝড়ের আঘাতে খুলনার কয়রায় দেড় হাজারেরও বেশি ঘরবাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। সড়কের ওপর গাছপালা উপড়ে পড়ে আছে।এছাড়া ভেসে গেছে মাছের ঘের ও পুকুর। তলিয়ে গেছে আমন ধান ও শীতকালীন সবজি।

বুলবুলের তান্ডবে খুলনার দাকোপ উপজেলায় নিজ বাড়িতে গাছ চাপা পড়ে প্রমিলা মন্ডল নামে এক নারীর মৃত্যু হয়েছে। এছাড়া দিঘীলিয়ায় ভেঙে পড়া গাছের ডালপালা সরাতে গিয়ে তা চাপা পড়ে মোহাম্মদ আসলাম নামে এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে।

ভোলার লালমোহনের চর পেয়ারী মোহন ও চর উমেদ এলাকায় অর্ধশতাধিক ঘর বিধ্বস্ত হয়েছে। সড়কে গাছ উপড়ে পড়ায় অনেক জায়গায় যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। এছাড়া চরফ্যাশন, মনপুরা ও তমুজুদ্দিন উপজেলার নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হয়েছে।

ঘূর্ণিঝড়ের আঘাতে বাগেরহাটের সুন্দরবন, মোংলা, শরণখোলাসহ ৯টি উপজেলায় ঘরবাড়ির ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। এদিকে, রামপালে ঘরের ওপর গাছ পড়ে সামিয়া খাতুন নামে এক কিশোরী নিহত হয়েছে।

৭০ কিলোমিটার বেগে বরিশাল অতিক্রম করেছে বুলবুল। এতে ফসলের ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। বিভিন্ন স্থানে গাছপালা ভেঙে বিদ্যুতের লাইন ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। ঘূর্ণিঝড়ের প্রভাবে ঝড়ো হাওয়া ও ভারী বৃষ্টিতে শহরের বেশিরভাগ রাস্তা ডুবে গেছে।

বরগুনায় পানির চাপে লবনগোলায় বেড়িবাঁধ ভেঙে লোকালয়ে পানি ঢুকছে। ঝালকাঠির সুগন্ধা ও বিষখালী নদীর পানি বেড়ে এসব এলাকার নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হয়েছে। সদরে একটি আশ্রয়কেন্দ্রে অসুস্থ হয়ে হালিমা খাতুন নামে এক নারী মারা গেছে। এছাড়াও পিরোজপুরে গাছ চাপায় একজনের মৃত্যু হয়েছে।

ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের প্রভাবে পটুয়াখালীর কলাপাড়ায় লালুয়া ইউনিয়নের ক্ষতিগ্রস্ত বেড়িবাঁধ দিয়ে পানি ঢুকে ১০টি গ্রাম প্লাবিত হয়েছে। বসত ঘরের ওপর গাছ ভেঙ্গে পড়ে মির্জাগঞ্জ উপজেলায় হামেদ ফকির নামে এক বৃদ্ধ নিহত হন। এছাড়া পিরোজপুর, ঝালকাঠিসহ উপকূলের বিভিন্ন এলাকায় বুলবুলের প্রভাবে ঝড়ো হাওয়া ও বৃষ্টি অব্যাহত রয়েছে।

মাদারীপুরে ঘূর্ণিঝড়ের প্রভাবে ঘরের উপর গাছের ডাল ভেঙ্গে পড়ে আতংকিত হয়ে সালেহা বেগম নামে এক বৃদ্ধের মৃত্যু হয়েছে। এদিকে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী দুই জনের মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করেছেন। এছাড়া সুন্দরবনের প্রভাবে ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ অনেকে কমে গেছে বলেও জানান দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী ডা. এনামুর রহমান।১২ জনের প্রাণ নিয়ে গেলো বুলবুল 3

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

nineteen + fourteen =