হাতুড়ি দিয়ে ছাত্রের হাত ভেঙে দিলো ছাত্রলীগ 2

হাতুড়ি দিয়ে ছাত্রের হাত ভেঙে দিলো ছাত্রলীগ

শরীয়তপুর সরকারি কলেজের একাদশ শ্রেণীর ছাত্র দাউদ ইব্রাহীমকে হাতুড়ি দিয়ে পিটিয়ে আহত করা হয়েছে। হাতুড়ির আঘাতে তার বাম হাত ভেঙে গেছে। তাকে শরীয়তপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

শরীয়তপুর সরকারি কলেজের দ্বাদশ শ্রেণীর ছাত্রলীগ কমিটির সভাপতি মেহেদী হাসান ওরফে শুভ ঢালীর বিরুদ্ধে রোববার দুপুরে এ ঘটনা ঘটানোর অভিযোগ উঠেছে।

শরীয়তপুর সদরের পালং মডেল থানা ও কলেজ সূত্র জানায়, রোববার সকালে শরীয়তপুর সরকারি কলেজ চত্বরে একাদশ ও দ্বাদশ শ্রেণীর কয়েকজন শিক্ষার্থীর মধ্যে মারামারির ঘটনা ঘটে।

তখন সেখানে বিষয়টি কলেজের ছাত্রলীগ নেতারা মিটিয়ে ফেলেন। দুপুর ১টার দিকে একাদশ শ্রেণীর ছাত্র দাউদ ইব্রাহীমকে শহরের দুবাই প্লাজার কাছে একা পেয়ে মারধর করা হয়।

কলেজের দ্বাদশ শ্রেণী শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি শুভ ঢালীর নেতৃত্ব ওই হামলায় অংশ নেয় জহিরুল ইসলাম,বাধন,রিফাত ও ফাহিম। তারা সকলে ওই কলেজের দ্বাদশ শ্রেণীর ছাত্র।

দাউদ ইব্রাহীমকে হাতুড়ি দিয়ে পেটানো হয়। এতে তার বাম হাম ভেঙ্গে যায়। আর ডান হাতের কনুইতে আঘাত লাগে। খবর পেয়ে সহপাঠীরা তাকে উদ্ধার করে শরীয়তপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করেছে।

শরীয়তপুর সদর হাসপাতালের চিকিৎসক মফিজুর রহমান স্বপন বলেন,তার বাম হাতের কনুইর নিচে ভেঙ্গে গেছে। দু-এক দিনের মধ্যে সেখানে অস্ত্রোপচার করাতে হবে। হাতুড়ি দিয়ে পেটানোর কারণে আঘাতটা মারাত্মক।

ঘটনার পর থেকে শুভ ঢালি, জহিরুল ইসলাম,বাধন, রিফাত ও ফাহিমের মুঠোফোন বন্ধ এ কারণে তাদের বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

শরীয়তপুর সরকারি কলেজ শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি সোহাগ বেপারী বলেন, রোববার সকালে কলেজে একাদশ-দ্বাদশ শ্রেণীর সিনিয়র-জুনিয়র দ্বন্দ্বে মারামারির ঘটনা ঘটে। বিষয়টি আমরা মিটমাট করে দিয়েছিলাম। কিন্তু তারপর কেন একজন নিরীহ ছাত্রকে পিটিয়ে হাত ভেঙে দেয়া হল তা আমি বুঝতে পারছিনা।

অভিযোগ যেহেতু একজন ছাত্রলীগ নেতার বিরুদ্ধে তাই আমার সিনিয়র নেতাদের সাথে আলাপ করব। এরপর তার বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

nineteen − 9 =