হবিগঞ্জে চালককে হত্যা করে ট্রাক ছিনতাই : দুইজন গ্রেফতার 2

হবিগঞ্জে চালককে হত্যা করে ট্রাক ছিনতাই : দুইজন গ্রেফতার

চুনারুঘাটের সাতছড়ির বনে চালককে হত্যা করে ট্রাক ছিনতাই করেছে দুর্বৃত্তরা।

পুলিশ ঘটনার ৫ দিনের মাথায় হত্যার রহস্য উদঘাটন করেছে ।

এ ঘটনায় গ্রেফতার করা হয়েছে দুই দুর্বৃত্তকে।

আজ সোমবার বিকেলে ট্রাক চালকের মরদেহ উদ্ধার করা হয়। নিহত ট্রাক চালক সাগর সরকার হবিগঞ্জ শহরের নোয়াহাটি এলাকার বাসিন্দা প্রদীপ সরকারের পুত্র।

পুলিশ সূূূত্র জানায়, সাগর জনৈক কবির মিয়ার পিকআপ ভ্যান চালাতো। একই মালিকের অপর একটি পিকআপ ভ্যান চালাতো বাবুল মিয়া। তার পূর্ব পরিকল্পনা অনুযায়ী ১৩ মে তার পরিচিত আলাউদ্দিনসহ একটি চক্র গাড়িটি ভাড়ার নামে সাগরকে নিয়ে শায়েস্তাগঞ্জ উপজেলায় যায়।

সেখান থেকে মাধবপুর উপজেলায় যাওয়ার কথা বলে রওয়ানা হয়। পথে চুনারুঘাট উপজেলার সাতছড়ি জাতীয় উদ্যানের পাশে গহীন বনে নিয়ে চালক সাগরকে হত্যার পর লাশ ফেলে রাখে।

গাড়িটি বিক্রির উদ্দেশ্যে মাধবপুর উপজেলার বাংলাদেশ-ভারত সীমান্তবর্তী মনতলা এলাকায় নিয়ে যায়।

এ ঘটনায় নিখোঁজ সাগরের বাবা প্রদীপ সরকার হবিগঞ্জ সদর থানায় একটি সাধারণ ডায়রি করেন।

এর প্রেক্ষিতে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. রবিউল ইসলামের নেতৃত্বে হবিগঞ্জ সদর থানার ওসি মো. মাসুক আলী ঘটনার তদন্ত করেন।

পুলিশ প্রথমে সন্দেহ করে গাড়িটি হয়তো চালক সাগরই নিয়ে পালিয়েছে। পরে প্রযুক্তি ব্যবহার করে অপর পিকআপ চালক শহরের যশেরআব্দা এলাকার বাসিন্দা তাজু মিয়ার ছেলে বাবুল মিয়াকে আটক করে।

বাবুলের দেয়া তথ্য মতে শায়েস্তাগঞ্জের আব্দুল কাদিরের ছেলে আলাউদ্দিনকে গ্রেফতার করে পুলিশ। তারা ঘটনার সাথে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করে হত্যার আদ্যোপান্ত বর্ণনা করে।

তাদের দেয়া তথ্যে আজ সোমবার বিকেলে সাতছড়ি জাতীয় উদ্যানের গহিন বন থেকে চালক সাগরের মরদেহ উদ্ধার করে।

মনতলা থেকে পরিত্যক্ত অবস্থায় উদ্ধার করা হয়েছে ছিনতাই করা পিকআপ ভ্যানটিও।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. রবিউল ইসলাম জানান, ঘটনার সাথে মোট ৪ জন সম্পৃক্ত। তাদের একে অপরের সাথে কারাগারে পরিচয় হয়।

তাদের অপর দুই সহযোগিদেরও গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

4 × 2 =