সিঙ্গাইরে পৌর এলাকার পর  ইউনিয়ন লকডাউন 2

সিঙ্গাইরে পৌর এলাকার পর  ইউনিয়ন লকডাউন

মানিকগঞ্জ প্রতিনিধি :
মানিকগঞ্জের সিংগাইরে পৌর এলাকার পর এবার লকডাউন করা হলো একটি ইউনিয়নকে।

সোমবার রাতে ওই এলাকায় করোনায় আক্রান্ত হয়ে চাপাইনবাগঞ্জে গিয়ে এক ব্যক্তির মৃত্যুর পর ওই আজ (মঙ্গলবার) সকালে ওই ইইনয়নকে লকডাউন ঘোষণা করেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) রুনা লায়লা।

এর আগে তাবলিগ জামাতে আসা এক ব্যক্তির করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার ঘটনায় গত রোববার থেকে সিঙ্গাইর পৌর এলাকা লাকডাউন ঘোষণা করে উপজেলা প্রশাসন।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) রুনা লায়লা সাংবাদিকদের জানান, দুই সপ্তাহ আগে চাপাইনবাবগঞ্জের গোমস্তাপুর উপজেলা থেকে দুই কৃষিশ্রমিক সিঙ্গাইর উপজেলার জামির্ত্তা ইউনিয়নে কাজ করতে আসেন। গত বুধবার থেকে শ্রমিকদের মধ্যে একজনের (৪৬) সর্দি, কাশি ও শ্বাসকষ্ট দেখা দেয়। গত শনিবার অসুস্থ শ্রমিকসহ দুই শ্রমিক গ্রামের বাড়ি গোমস্তাপুরে ফিরে যান। গতকাল সোমবার রাতে অসুস্থ ওই শ্রমিক মারা যান।

করোনা উপসর্গ নিয়ে মারা যাওয়ার আগে ওই শ্রমিক জামির্ত্তা ইউনিয়নে কৃষিকাজ করতে এসে ওই এলাকার অনেকেরে সাথে মিশেছেন এবং বিভিন্ন এলাকায় থেকেছেন।

একারণে, করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ রোধে ওই ইউনিয়নকে লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছে।

জামির্ত্তা ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান আবদুল হালিম বলেন, লকডাউনের পর ইউনিয়নের বিভিন্ন গ্রামে মাইকিং করে সবাইকে বাড়িতে থাকতে বলা হয়েছে।

পুলিশ এসে প্রত্যেককে হোম কোয়ারেন্টিনে থাকতে হুঁশিয়ারি করেছে। লকডাউন বজায় রাখতে তিনিসহ ইউপি সদস্য ও গ্রাম পুলিশ সেখানে কাজ করছেন।

উল্লেখ্য, জেলার ঘিওর উপজেলার বাইলজুরি গ্রামের এক ব্যক্তি করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা যাওয়ার আশংকায় ওই গ্রামকে লকডাউন ঘোষণা করেছে ঘিওর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আইরিন আক্তার।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

2 × 4 =