সারাদেশে একদিনে ২১ জন নিহত 2

সারাদেশে একদিনে ২১ জন নিহত

সড়কে মৃত্যুর মিছিল থামছেই না। গাড়ির সিলিন্ডার বিস্ফোরণে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় প্রাণ গেল ৬ জনের।

এর কয়েক ঘণ্টার ব্যবধানে হবিগঞ্জে মাইক্রোবাস নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে গাছের সাথে ধাক্কায় মারা যান আরো ১০ জন। দু’টি দুর্ঘটনায় নিহত সবার বাড়িই নারায়ণগঞ্জে। সেখানে এখন শোকের মাতম। এছাড়া, ঢাকা, কুমিল্লা ও ময়মনসিংহে এক পুলিশ সদস্যসহ পাঁচজন নিহত হয়েছেন সড়ক দুর্ঘটনায়। একদিনেই নিহত হলো ২১ জন।

জানা যায়, মধ্যরাতে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার রামপুর পরিণত হয় যেন নরকে। গাড়িতেই পুড়ে অঙ্গার ৫ আরোহী। দগ্ধ আরও একজনের মৃত্যু হয় হাসপাতালে নেয়ার পথে।

পুলিশ জানায়, নারায়ণগঞ্জ থেকে সিলেটগামী মাইক্রোবাসের সাথে সংঘর্ষ হয় বিপরীত দিক থেকে আসা লিমন পরিবহনের একটি বাসের। এতে মাইক্রোবাসের গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরিত হয়ে আগুন ধরে যায়। দগ্ধ আরও ৪ জনকে ভর্তি করা হয়েছে ঢাকা মেডিকেলে।

মর্মান্তিক এই দুর্ঘটনার ঠিক চারঘণ্টা পর আবারও সড়কে প্রাণহানী। হবিগঞ্জের কান্দিগাও এলাকায় নিয়ন্ত্রণ হারায় মাইক্রোবাস চালক। গাছের সাথে ধাক্কায় দুমড়ে-মুচড়ে যায় গাড়িটি। ঘটনাস্থলে নিহত হয় নারী-শিশুসহ ৮ জন। গুরুতর পাঁচজনকে ভর্তি করা হয় সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে। আহতদের মধ্যে থেকে মারা যায় আরও দুই জন।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া ও হবিগঞ্জে দুর্ঘটনায় হতাহতদের সবার বাড়ি নারায়ণগঞ্জে। দুর্ঘটনার খবরে কান্নায় ভেঙ্গে পড়েছেন স্বজনরা। তাদের আহাজারিতে ভারি পুরো জনপদের পরিবেশ।

এছাড়া ঢাকা, ময়মনসিংহ, কুমিল্লা ও সাভারে পুলিশ সদস্যসহ সড়কে প্রাণ গেছে পাঁচ জনের।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

15 + sixteen =