মোহনগঞ্জে সপ্তম শ্রেণির এক স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণ 2

মোহনগঞ্জে সপ্তম শ্রেণির এক স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণ

নেত্রকোণার মোহনগঞ্জে সপ্তম শ্রেণির এক স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। মামলার পরপরই অভিযুক্ত সারোয়ার হোসেনকে (২৩) গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

রবিবার সকাল ১১টার দিকে মোহনগঞ্জ উপজেলার বড়তলী গ্রামে অভিযান চালিয়ে পুলিশ তাকে গ্রেফতার করে। অভিযুক্ত সারোয়ার উপজেলার বড়তলী-বানিয়াহারী ইউনিয়নের বড়তলী গ্রামের আল্লাদ মিয়ার ছেলে।

পুলিশ ও মেয়েটির পারিবারিক সূত্রে আরো জানা গেছে, শুক্রবার রাত আটটার দিকে মেয়েটি নিজ বসত ঘরের পেছনের টয়লেটে যায়।

পরে সেখান থেকে সে ঘরে ফেরার পথে আগে থেকে ওঁৎ পেতে থাকা সারোয়ার হোসেন মেয়েটিকে ধারালো অস্ত্রের ভয় দেখিয়ে গামছা দিয়ে মুখ বেঁধে পাশের একটি পতিত জমিতে নিয়ে ধর্ষণ করে। বিষয়টি তার পরিবারের কাউকে জানালে তাকেসহ তার মা-বাবাকে মেরে ফেলবে বলেও মেয়েটিকে হুমকি দেয়।

এ অবস্থায় মেয়েটি সারোয়ারের হুমকির ভয়ে বিষয়টি পরিবারের কাউকে না জানিয়ে ঘরে শুয়ে কাঁদতে থাকে। মেয়েটির কান্না শুনে তার পরিবারের লোকজনের মনে সন্দেহ দেখা দেয়। এবং তার মা বার বার তাকে জিজ্ঞাসা করলে এক পর্যায়ে শনিবার সন্ধ্যায় মেয়েটি তার মায়ের কাছে সবকিছু খুলে বলে।

মোহনগঞ্জ থানার ওসি (তদন্ত) মো. আবদুল মোতালেব এ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, মামলা দায়েরের পর রবিবার সকাল ১১টার দিকে পুলিশ অভিযান চালিয়ে ধর্ষককে গ্রেফতার করে ওইদিন দুপুরে তাকে আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

20 + twenty =