ভারত-পাকিস্তানে শক্তিশালী ভূমিকম্প 2

ভারত-পাকিস্তানে শক্তিশালী ভূমিকম্প

ভারতের উত্তরাঞ্চল এবং পাকিস্তানের বেশ কয়েকটি শহরে শক্তিশালী ভূমিকম্প আঘাত হেনেছে। স্থানীয় সময় মঙ্গলবার বিকাল সাড়ে ৪টার দিকে এ কম্পন অনুভূত হয়। ভারতীয় সংবাদমাধ্যম জানাচ্ছে, দেশটির বিভিন্ন স্থানে অন্তত ৮ জনের নিহতের খবর পাওয়া গেছে।

তবে পাকিস্তানে হতাহতের কোনো খবর এখনও পাওয়া যায়নি।

কাশ্মীরের নিকটবর্তী ভারত-পাকিস্তান সীমান্তে ৬ দশমিক ৩ মাত্রার ভূমিকম্পে ভারতের রাজধানী দিল্লিও কেঁপে ওঠে। নয়াদিল্লির পাশাপাশি চন্ডিগড়, পাঞ্জাব ও জম্মু-কাশ্মীরেও কম্পন অনুভূত হয়েছে।

এদিকে দ্য ডনের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, আজাদ কাশ্মীরসহ পাকিস্তানের রাজধানী ইসলামাবাদ ও খাইবার পাখুতন-খাওয়া অঞ্চলেও ভূমিকম্প আঘাত হেনেছে। এ ভূমিকম্পের স্থায়িত্ব আট থেকে ১০ সেকেন্ড হলেও প্রচণ্ডভাবে আঘাত হানে।

পাকিস্তান আবহাওয়া দফতরের ভূমিকম্প কেন্দ্রের উপপরিচালক নাজিব আহমেদ ডন নিউজকে বলেন, ৫.৮ মাত্রার ভূমিকম্পের উপকেন্দ্রটি ছিল ভূপৃষ্ঠর ১০ কিলোমিটার গভীরে। ভূমিকম্পের পর সারা দেশের ভবন ও কার্যালয়গুলো থেকে মানুষ দ্রুত বাইরে বেরিয়ে আসে।

ভূমিকম্পের কারণে রাস্তাঘাটসহ বিভিন্ন স্থাপনার ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে।

ডিভিশনাল কমিশনার চৌধুরি মুহাম্মাদ তৈয়্যব জানান, ভূমিকম্পের ফলে মিরপুরে নিহত ১৯ জনের মধ্যে তিনটি শিশু। নিহতদের মধ্যে দুজন ডিভিশনাল হেডকোয়ার্টার্স হসপিটাল মিরপুরে আনার আগে মারা যান। সাতজন আহত হয়ে হাসপাতালটিতে ভর্তি হওয়ার পর মারা যান। এছাড়া দশজন জাতলান গ্রামে মারা যান।

পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান এই হতাহতের ঘটনায় শোক জানিয়েছেন। তিনি এবং দেশটির সেনাপ্রধান জেনারেল কামার জাভেদ বাজওয়া উভয়ই যথাসময়ে উদ্ধার অভিযান ও ত্রাণ সহযোগিতা কার্যক্রম পরিচালনার নির্দেশ দিয়েছেন।

এই ভূমিকম্পের ফলে ভারতের দিল্লি-এনসিআর (ন্যাশনাল ক্যাপিটাল রিজিয়োন) অঞ্চলেও হালকা কম্পন অনুভূত হয়েছে বলে জানিয়েছে দেশটির শীর্ষস্থানীয় গণমাধ্যম টাইমস অব ইন্ডিয়া।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

twelve − 7 =