বঙ্গবন্ধু বিজ্ঞানমনস্ক ছিলেন: ইবি উপাচার্য 2

বঙ্গবন্ধু বিজ্ঞানমনস্ক ছিলেন: ইবি উপাচার্য

‘বিজ্ঞানী হওয়ার চাইতে বিজ্ঞান মনস্ক হওয়া অনেক বেশি জরুরী। ল্যাবরেটরি প্রকোষ্টে গবেষণা করে নানা আবিস্কারে অনেকে খ্যাতির শীর্ষে উঠেছেন। কিন্তু বিজ্ঞানমনস্কতা তাদের নেই।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞানী ছিলেন না কিন্তু তিনি বিজ্ঞানমনস্ক ছিলেন’ বলে মন্তব্য করেছেন ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের (ইবি) উপাচার্য অধ্যাপক ড. হারুন-উর-রশিদ আসকারী।

মঙ্গলবার (২৫ ফেব্রুয়ারি) সকাল ১১ টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় মিলনায়তনে বায়োটেকনোলজি অ্যান্ড জেনেটিক ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগ আয়েজিত ‘বঙ্গবন্ধু দর্শন’ শীর্ষক আলোচনা ও বিভাগের ১৬তম ব্যাচের শিক্ষার্থীদের বিদায়ী সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে তিনি এসব মন্তব্য করেন।

এসময় তিনি আরো বলেন, বর্তমানে বিভিন্ন বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে গ্রাজুয়েট বের হচ্ছে ঠিকই। তাদের কুপমন্ডুক আচরণ দেখলে মনে হয় না যে বিজ্ঞানের সাথে তাদের সম্পর্ক রয়েছে।

আমাদের জাতিরাষ্টের জন্ম দিয়েছেন বঙ্গবন্ধু। এই রাষ্ট্রের জন্ম দেওয়ার পিছনে তার বিজ্ঞান মনস্কতা কাজ করেছে। দেশ গঠনের দায়িত্ব গ্রহণের পর বিভিন্ন ক্ষেত্রে বঙ্গবন্ধু বিজ্ঞান মনস্ক চেতনার বহিঃপ্রকাশ ঘটিয়েছেন। আজকে আমরা যে স্যাটেলাইট যুগে প্রবেশ করেছি এটি বঙ্গবন্ধুর সেই তৎকালীন চিন্তার ই প্রসুন।’

এসময় বিভাগের সভাপতি অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ মিন্নাতুল করিমের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপাচার্য অধ্যাপক ড. হারুন-উর-রশিদ আসকারী। বিশেষ অতিথি ছিলেন প্রকৌশল ও প্রযুক্তি অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. নজিবুল হক।

বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. আবু হেনা মোস্তফা জামাল হ্যাপির সঞ্চালনায় প্রধান আলোচক হিসেবে ছিলেন রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. আনন্দ কুমার সাহা, স্বাগত বক্তব্য রাখেন বিভাগের অধ্যাপক ড. রেজওয়ানুল ইসলাম এবং বিদায়ী শিক্ষার্থীদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন মঞ্জুরা খাতুন লাবনী।

এছাড়াও বিভাগের অধ্যাপক ড. নিলুফা আখতার বানু, অধ্যাপক ড. মিজানুর রহমান, বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক ড. পরেশ চন্দ্র বর্মণসহসহ বিভাগের বিভিন্ন বর্ষের শিক্ষার্থীরা উপস্থিত ছিলেন।

অনুষ্ঠানে বিদায়ী শিক্ষার্থীদের ক্রেস্ট প্রদান করা হয়। শেষে বিভাগের শিক্ষার্র্থীদের অংশগ্রহণে এক মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান পরিবেশিত হয়।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

15 + 5 =