পিএসজি বড় জয় 2

পিএসজি বড় জয়

এমবাপের হ্যাটট্রিক আর মাউরো ইকার্দির জোড়া গোলে চ্যাম্পিয়ন্স লিগে বড় জয় পেয়েছে পিএসজি। ক্লাব ব্রুজের মাঠে বুধবার ৫-০ গোলে জেতে টমাস টুখেলের দল।

সপ্তম মিনিটে আচমকা আক্রমণে এগিয়ে যায় পিএসজি। নিজেদের ডি-বক্সের ঠিক সামনে থেকে উঁচু করে কোনাকুনি শটে ডান প্রান্তে বল বাড়ান অধিনায়ক চিয়াগো সিলভা। মাথা দিয়ে বল নামিয়ে ইকার্দিকে আড়াআড়ি পাস দেন আনহেল দি মারিয়া। ডান পায়ের নিখুঁত শটে লক্ষ্যভেদ করেন আর্জেন্টিনার ফরোয়ার্ড।

গোল হজমের পর অতিথিদের চেপে ধরে ক্লাব ব্রুজ। চতুর্দশতম মিনিটে প্রতি-আক্রমণে গোলরক্ষককে একা পেয়েও গোল করতে ব্যর্থ হন দি মারিয়া। বিরতির পর দুই মিনিটের ব্যবধানে দুই গোল হজম করে ম্যাচ থেকে ছিটকে যায় লড়তে থাকা স্বাগতিকরা।

৫২তম মিনিটে এরিক-মাক্সিম চুপো মোটিংয়ের বদলি হিসেবে নামার নয় মিনিট পরই ব্যবধান দ্বিগুণ করেন এমবাপে। বাঁ দিক থেকে দি মারিয়ার নেওয়া শট ব্রুজের গোলরক্ষক সিমোন মিনোলে ঝাঁপিয়ে ঠেকান; কিন্তু বিপদমুক্ত করতে পারেননি। ফিরতি বলে কাছ থেকে হেডে জাল খুঁজে নেন অরক্ষিত ফরাসি ফরোয়ার্ড।

দুই মিনিট পর নিজের দ্বিতীয় গোল করে দলকে আরও এগিয়ে নেন ইকার্দি। প্রতিপক্ষ রক্ষণের ভুলে ডি-বক্সে বল পেয়ে ছোট করে পাস দেন এমবাপে। দারুণ এক ভলিতে ঠিকানা খুঁজে নেন ইন্টার মিলান থেকে ধারে খেলতে আসা ২৬ বছর বয়সী স্ট্রাইকার।

৬৮তম মিনিটে ক্লাব ব্রুজ একবার পিএসজির জালে বল জড়ালেও হ্যান্ডবলের কারণে গোলের বাঁশি বাজাননি রেফারি। ৭৯তম মিনিটে দি মারিয়ার থ্রু বল পেয়ে ডান পায়ের শটে নিজের দ্বিতীয় গোলটি করেন এমবাপে।

চার মিনিট পর দি মারিয়ার আরেকটি ডিফেন্সচেরা পাস ধরে গতিতে প্রতিপক্ষ ডিফেন্ডারকে পরাস্ত করে নিজের হ্যাটট্রিক পূরণ করেন ২০ বছর বয়সী এই ফরোয়ার্ড। ২০০৮ সালের পর চ্যাম্পিয়ন্স লিগে বদলি নেমে এটাই কারো প্রথম হ্যাটট্রিক।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

twelve − 10 =