নারায়ণগঞ্জের গঞ্জের ডিসি, এসপি, সিভিল সার্জন, ইউএনও, স্বাস্থ্য কর্মকর্তা কোয়ারেন্টাইনে 2

নারায়ণগঞ্জের গঞ্জের ডিসি, এসপি, সিভিল সার্জন, ইউএনও, স্বাস্থ্য কর্মকর্তা কোয়ারেন্টাইনে

করোনা প্রকপের দিক থেকে ঢাকার পরই নারায়ণগঞ্জের অবস্থান। এ জেলায় এখন পর্যন্ত আক্রান্তের সংখ্যা ৪৬ জন।

এবার জ্বর, সর্দি কাশি ও ঠাণ্ডাজনিত রোগে অসুস্থ হয়ে হোম কোয়ারেন্টাইনে আছেন নারায়ণগঞ্জের জেলা প্রশাসক মো. জসীম উদ্দিন, পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জায়েদুল আলম এবং সিভিল সার্জন ডা. মোহাম্মদ ইমতিয়াজ ও সদর উপজেলা ইউএনও নাহিদা বারিক।

প্রশাসনের একাধিক সূত্র বিষয়টি নিশ্চিত করেছে।

এছাড়াও জেলা করোনা সংক্রান্ত ফোকাল পার্সন ও সদর উপজেলার স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. জাহিদুল ইসলাম রয়েছেন আইসোলেশনে।

তিনি বাড়িতেই এই প্রক্রিয়ার মধ্যে আছেন বলে পারিবারিক সূত্র নিশ্চিত করেছে। এর মধ্যে জেলা প্রশাসক মো. জসিম উদ্দিনের করোনা পরীক্ষার জন্য নমুনা সংগ্রহ করে আইইডিসিআরে পাঠানো হয়েছে বলেও জানা গেছে।

জানা গেছে, নারায়ণগঞ্জ জেলা করোনা প্রতিরোধ কমিটির সভাপতি জেলা প্রশাসক (ডিসি) মো. জসিম উদ্দিন এবং এই কমিটির সদস্য সচিব জেলা সিভিল সার্জন ডা. মোহাম্মদ ইমতিয়াজ।

এছাড়া আছেন জেলা করোনা সংক্রান্ত ফোকাল পার্সন ও সদর উপজেলার স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. জাহিদুল ইসলাম। অন্যদিকে, জেলার আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর কর্মকর্তা পুলিশ সুপার জায়েদুল আলম। ওই চারজনের কেউই গতকাল বুধবার (৮ এপ্রিল) অফিস করেননি।

পরে যানা যায়, তারা চারজনই বাড়িতে রয়েছেন। জ্বর সর্দিসহ করোনার উপসর্গ থাকায় তারা হোম কোয়ারেন্টাইনে আছেন। আর একজন আছেন আইসোলেশনে। ডিসির নমুনাও সংগ্রহ করা হয়েছে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক জেলা প্রশাসনের এক কর্মকর্তা জানান, জেলা প্রশাসক জসিম উদ্দিন গত মঙ্গলবার (৭ এপ্রিল) রাত থেকে হঠাৎ অসুস্থ বোধ করলে গতকাল বুধবার তিনি তার বাংলোয় বিশ্রামে চলে যান। সেখান থেকেই জেলা স্বাস্থ্য বিভাগের লোকজন তার নমুনা সংগ্রহ করে আইইডিসিআরে পাঠায়।

এদিকে, জেলা করোনা প্রতিরোধ কমিটির সদস্যসচিব ও জেলা সিভিল সার্জন ডা. মোহাম্মদ ইমতিয়াজও গতকাল বুধবার থেকে কোয়ারেন্টাইনে রয়েছেন। জেলা করোনা ফোকাল পার্সন ডা. জাহিদুল ইসলাম করোনা সন্দেহে বাড়িতে আইসোলেশনে আছেন। এছাড়া জেলা পুলিশ সুপার জায়েদুল আলমও অফিসে আসেননি।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

four × 2 =