নবীগঞ্জে প্রশাসন-সেনা যৌথ অভিযান : ৬৭ হাজার টাকা অর্থদণ্ড 2

নবীগঞ্জে প্রশাসন-সেনা যৌথ অভিযান : ৬৭ হাজার টাকা অর্থদণ্ড

মতিউর রহমান মুন্না, নবীগঞ্জ থেকে :: হবিগঞ্জের নবীগঞ্জ উপজেলায় করোনাভাইরাস সংক্রমণ প্রতিরোধে সচেতনতা সৃষ্টিতে ও সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত করতে নবীগঞ্জ উপজেলা প্রশাসন এবং সেনাবাহিনীর সমন্বয়ে যৌথ অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

বৃহস্পতিবার দিনব্যাপী পৃথক অভিযানে নেতৃত্ব দেন নবীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বিশ্বজিত কুমার পাল, উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) সুমাইয়া মমিন ও সেনাবাহিনীর ক্যাপ্টেন এএসএম শিহাবুজ্জামান শিহাব।

অভিযানে উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করে মোট ৬৭ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করা হয়।
জানা যায়, করোনাভাইরাস সংক্রমণ প্রতিরোধে অক্লান্ত পরিশ্রম করে যাচ্ছেন নবীগঞ্জ উপজেলা প্রশাসন ও সেনা বাহিনী।

তারা যৌথ ভাবে অভিযান পরিচালনা করে গ্রাম-গঞ্জের মানুষকে সচেতন করছেন। মাইকিং করে জনগণকে বাড়িতে নিরাপদে থাকার জন্য আহবান জানান।

নিত্য প্রয়োজনীয় ব্যবসা প্রতিষ্টান ছাড়া সব দোকান পাট বন্ধের ঘোষনা দেয়া হয়।

প্রশাসন সূত্রে জানা যায়, বৃহস্পতিবার দিনব্যাপী উপজেলার কামারগাঁও, বান্দেরবাজার, ইনাতগঞ্জ বাজার, কাজিরবাজার, গোপলার বাজার, নতুন বাজার, আউশকান্দি বাজারে অভিযান পরিচালনা করা হয়।

এ সময় ইতিপূর্বে একাধিকবার সতর্ক করার পরও সরকারী নির্দেশ অমান্য করে অনেক দোকান পাট খোলা রাখায় তাদেরকে মোট ৬৬ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

এর মধ্যে পৃথক অভিযানে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা, ভ্রাম্যমান আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট বিশ্বজিত কুমার পাল করেছেন ১৬ হাজার টাকা অর্থদণ্ড এবং উপজেলা সহকারী কমিশনার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সুমাইয়া মমিন ৫১ হাজার টাকা অর্থদণ্ড প্রদান করেন।

এতে মোট ৬৭ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করা হয়। এসময় সেনাবাহিনীর ক্যাপ্টেন এএসএম শিহাবুজ্জামান শিহাবের নেতৃত্বে অভিযানে অংশ নেয়া সেনাবাহিনীর টিম বাজারে বাজারে ব্যাপক তৎপরতা চালায়। অকারণে বাজারে ঘুরাঘুরি এবং আড্ডারতদের ছত্রভঙ্গ করে দেন তারা। জরুরি প্রয়োজন ছাড়া ঘর থেকে মানুষকে বাইরে না যেতে মাইকিং করে সতর্ক করা হয় এবং কোন জরুরী প্রয়োজনে বাহিরে গেলে মাস্ক ব্যবহার করার পরামর্শ দেয়া হয়।

এ ব্যাপারে সেনাবাহিনীর ক্যাপ্টেন এএসএম শিহাবুজ্জামান শিহাব জানান, করোনা ভাইরাস (কোভিড-১৯) প্রতিরোধে, সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিতের লক্ষ্যে সেনাবাহিনী মাঠে কাজ করছেন। কোথাও যেন জনসমাগম না হয় সে বিষয়ে নজরদারি রাখতে নিয়মিত টহল অব্যাহত রয়েছে।

এ ব্যাপারে নবীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট বিশ্বজিত কুমার পাল বলেন, মানুষকে ঘরে রাখা নিশ্চিত করতে কঠোর অবস্থানে প্রশাসন ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনী।

যারা সরকারী নির্দেশ অমান্য করে তাদের নিয়মিত অভিযান চালিয়ে জরিমানা করা হয়।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

16 − three =