দুই স্বামী নিয়ে সংসার করেন মহিলা লীগ নেত্রী! 2

দুই স্বামী নিয়ে সংসার করেন মহিলা লীগ নেত্রী!

অবশেষে জানা গেল টঙ্গীর ব্যাপক আলোচিত সমালোচিত যুব মহিলালীগ নেত্রী একই সাথে দুই স্বামীর সংসার করতেন।

গত বুধবার রাতে দ্বিতীয় স্বামীর বিরুদ্ধে ধর্ষণের মামলা দিলেও এখনো কারোর সাথে তার ছাড়াছাড়ি হয়নি। তবে মামলার এজাহারে তিনি দ্বিতীয় স্বামীকে তার প্রেমিক বলে দাবী করেছেন।

একটানা দীর্ঘ দশ বছর তাদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক ছিল এবং তাকে বিবাহ করার আশ্বাস দিয়ে ধর্ষণ করা হতো বলে তিনি মামলার এজাহারে দাবী করেন। কিন্তু স্থানীয়দের গুঞ্জনে আসল ঘটনা ফাঁস করে দিলেন। আসল রহস্য সোশ্যাল মিডিয়ার পেজে ওই নেত্রীর দ্বিতীয় স্বামীর সাথে বিবাহের হলফনামা প্রকাশ হলে এলাকায় সমালোচনার ঝর উঠছে।
এফএনএফ এর আসল চরিত্র ফুটে উঠেছে।
গত বুধবার পরকীয়া প্রেমিকসহ ৫ জনের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিনব অভিযোগে থানায় মামলা দিয়ে আলোচনায় আসেন ওই নেত্রী। টঙ্গী পূর্ব থানায় দায়েরকৃত আলোচিত ধর্ষণ মামলার প্রধান আসামী ৪৬ নম্বর ওয়ার্ড স্বেচ্ছাসেবকলীগের সভাপতি প্রার্থী আলী আসগর। মামলার বাদী আলোচিত নেত্রী নাসিমা আক্তার ওরফে নাসরিন স্থানীয় একজন যুবলীগ নেতার স্ত্রীর সাথে ওয়ার্ড যুব মহিলা লীগের সভাপতি পদে লড়ছেন।

এর পর নাসিমার অপরাধ জগতের নানা তথ্য সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে উঠে আসে। অনেকে স্থানীয় সাংবাদিকদের ম্যাসেঞ্জার ইনবক্সের নাসিমার গোপন অডিও, ভিডিও ও স্থিরচিত্র পাঠাতে থাকেন। একটি চিত্রে দেখা গেছে, নাসিমা একটি রাজকীয় খাটে বসে ফেনসিডিল খাচ্ছেন।

আরেকটি ছবিতে নাসিমাকে একজন কেন্দ্রীয় যুব মহিলালীগ নেত্রীর সাথে সেলফি তুলতে দেখা গেছে। প্রাপ্ত হলফনামায় দেখা গেছে, নাসিমা ও তার পরকীয়া প্রেমিক স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতা আলী আসগর বিগত ২০১৬ সালের ২৪ জুন নোটারি পাবলিকের মাধ্যমে তাদের বিবাহের হলফনামা সম্পাদন করেন। এলাকাবাসী জানান, নাসিমার প্রথম স্বামী জসিম উদ্দিন সুমনও এসব মেনে নিয়েই নাসিমার সাথে দ্বৈতভাবে সংসার করতো। তাদের সংসারে (নাসিমা-সুমন দম্পত্তি) প্রায় চৌদ্দ বছর বয়সের একটি ছেলে সন্তানও রয়েছে। সুমন ও আসগর পরস্পর ‘পুরুষ সতিন’ এবং সমাজ বিরোধী এ জঘন্য কাজের জন্য নাসিমা ও তার দুই পুরুষ সতিনের সমানভাবে বিচার হওয়া উচিত বলেও অনেকে মন্তব্য করেন।
এ ঘটনায় যুবকটির মুক্তিযোদ্ধা দাদা টঙ্গী পূর্ব থানায় মামলা করতে গেলে পুলিশ মামলা নেয়নি। স্থানীয় একজন সাংবাদিক ঘটনা জেনে ফেলায় আলোচিত নেত্রী নাসিমা সংবাদ প্রকাশ না করার জন্য ওই সাংবাদিককে হুমকি দিয়েছিল বলেও জানা গেছে।

এদিকে এসব বিষয়ে বক্তব্য জানার জন্য নাসিমা ও তার দুই স্বামীর সাথে বার বার যোগাযোগের চেষ্টা করেও তাদেরকে পাওয়া যায়নি।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

4 + twelve =