দাদি নাতির পরকীয়া : যে কারণে নাতির লিঙ্গ কাটলেন দাদি! 2

দাদি নাতির পরকীয়া : যে কারণে নাতির লিঙ্গ কাটলেন দাদি!

চুয়াডাঙ্গার আলমডাঙ্গায় অবিবাহিত নাতি মানিকের (২৭) সাথে পরকিয়া প্রেমে মত্ত দাদি প্রবাসির স্ত্রী দু’সন্তানের জননী স্ত্রী শখের বানু (৩০) নাতির বিয়ের খবরে ক্ষুব্ধ হয়ে রাতে নিজের শয়ন কক্ষে ডেকে নিয়ে লিঙ্গ (পুরুষাঙ্গ) কেটে দিয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে আলমডাঙ্গা উপজেলার পাইকপাড়া গ্রামে।

রাতেই গুরুতর রক্তাক্ত অবস্থায় নাতি মানিককে আলমডাঙ্গা শেফা ক্লিনিকে ভর্তি করা হয়েছে। কর্তিত লিঙ্গে ৮টি সেলাই দেওয়া হয়েছে বলে জানা গেছে। মানিক পাইকপাড়া গ্রামের আলমঙ্গীর আলীর ছেলে।

এলাকাবাসী ও পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, আলমডাঙ্গা উপজেলার পাইকপাড়া গ্রামের সাজ্জাদ আলী দু’সন্তানমহ স্ত্রী শখের বানুকে রেখে ১১ মাস আগে বিদেশে পাড়ি জমায়। এই সুযোগে স্ত্রী শখের বানু সম্পর্কের নাতি প্রতিবেশি যুবক মানিকের সাথে পরকিয়া প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তোলে।

তারপর থেকে নাতি মানিক ও দাদি শখের বানু শারীরিক সম্পর্কে লিপ্ত হয়। এরই মাঝে দিন কয়েক আগে প্রেমিক নাতি মানিকের মতামতের ভিত্তিতে পারিবারিকভাবে বিয়ের দিনক্ষণ ঠিক হয়েছে। এতে ক্ষিপ্ত হয় অবৈধ প্রেমে লিপ্ত দু’সন্তানের জননী স্ত্রী শখের বানু। নিজের রাগ-ক্ষোভ প্রকাশ না করে দাদি পরকিয়া প্রেমিক নাতি মানিককে আমন্ত্রণ জানান তার শয়ন কক্ষে।

দাদির আমন্ত্রণে সাড়া দিয়ে সোমবার দিনগত রাত ১১ দিকে প্রেমিক নাতি উপস্থিত হয় শয়ক কক্ষে। দাদি পূর্ব পরিকল্পনা অনুযায়ি প্রেমিক নাতিকে উত্তেজিত করে লুকিয়ে রাখা ব্লেড দিয়ে তার লিঙ্গে পোস মারেন। এতে গুরুতর রক্তাক্ত জখম হন প্রেমিক নাতি। তার অবস্থা বেগতিক হলে চিকিৎসার জন্য আলমডাঙ্গার শেফা ক্লিনিকে ভর্তি করা হয়।

ক্লিনিক সূত্রে জানা যায়, মানিকের কর্তিত লিঙ্গে মোট আটটি সেলাই দিতে হয়েছে। বর্তমানে সে ক্লিনিকে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

এসপি

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

1 + three =