তামাক থেকে করোনার ভ্যাকসিন তৈরির দাবি ব্রিটিশ-আমেরিকান টোবাকোর 2

তামাক থেকে করোনার ভ্যাকসিন তৈরির দাবি ব্রিটিশ-আমেরিকান টোবাকোর

করোনার ওষুধ ও টিকা নিয়ে গবেষণায় নিত্য নতুন দিক উঠে আসছে। এবার তামাক পাতা থেকে প্রতিষেধক তৈরির কথা জানিয়েছে সিগারেট কোম্পানি ব্রিটিশ‌–আমেরিকান টোবাকো। তারা দাবি করেছে, ইতিমধ্যে তারা করোনার প্রতিষেধক তৈরি করেছে। এখন শুধু বাকি মানুষের শরীরে পরীক্ষা চালানো। সূত্র: খালিজ টাইমস।

শুক্রবার এক বিবৃতিতে বিখ্যাত লাকি স্ট্রাইক সিগারেট উৎপাদনকারী সংস্থাটি দাবি করেছে, প্রি–ক্লিনিক্যাল টেস্টে সুফল দেখিয়েছে এই প্রতিষেধক। মার্কিন ফুড অ্যান্ড ড্রাগস অ্যাডমিনিস্ট্রেশনের (এফডিএ) অনুমতি পেলেই জুন মাসের শুরু থেকে এটি মানুষের শরীরে পরীক্ষার কাজ শুরু করতে পারে এই সংস্থাটি। সাফল্য পেলে মানব সভ্যতারই এক বড় সমস্যার সমাধান হবে বলে মনে করছে তারা।

সারা পৃথিবীর ওষুধ তৈরির সংস্থাগুলি এখন দিনরাত করোনা প্রতিষেধক তৈরির কাজ করে চলেছে। আমেরিকা, ইউরোপ, চীন ও অন্যান্য অংশে কাজ করছে ১০০–এর বেশি সংস্থা। তবে করোনা প্রতিরোধে তামাক পাতার ব্যবহারের কথা তেমন একটি শোনা যায়নি। ব্রিটিশ আমেরিকান টোবাকোর দাবি, প্রথাগত পদ্ধতির থেকে এই পথে দ্রুত করোনার ভ্যাকসিন তৈরি করা সম্ভব। কয়েকমাসের বদলে এক্ষেত্রে লাগতে পারে মাত্র কয়েক সপ্তাহ।

তবে তামাক পাতা থেকে করোনার ভ্যাকসিন তৈরি হচ্ছে মানে তামাকজাত দ্রব্য করোনা মোকাবিলায় সাহায্য করবে, এমনটা কিন্তু নয়। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা আগেই জানিয়েছিল, তামাকজাত দ্রব্য করোনা সংক্রমণের ঝুঁকি বাড়িয়ে দিতে পারে।

গত এপ্রিলে এ সিগারেট প্রস্তুতকারক কোম্পানি যখন জানিয়েছিল, তামাক পাতা থেকে তারা করোনা টিকা তৈরি করছে তখন বিতর্ক শুরু হয়েছিল। তবে, কোম্পানিটির দাবি তারা সাফল্যের ব্যাপারে আশাবাদী। সপ্তাহে ১ থেকে ৩ মিলিয়ন টিকা তৈরি করার প্রস্তুতি আছে তাদের।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

seventeen + sixteen =