টেকনাফে বন্দুকযুদ্ধে রোহিঙ্গা যুবক নিহত 2

টেকনাফে বন্দুকযুদ্ধে রোহিঙ্গা যুবক নিহত

টেকনাফে র‌্যাপিড এ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব) সদস্যদের সঙ্গে কথিত বন্দুকযুদ্ধে নুরুল আমিন (৩০) নামের এক রোহিঙ্গা যুবক নিহত হয়েছে।

র‌্যাবের দাবি, নিহত যুবক একজন শীর্ষ রোহিঙ্গা ডাকাত। সে টেকনাফ উপজেলার লেদা নুরালী পাড়ার মৃত মকতুল হোসেনের ছেলে।

রোববার (১০ ফেব্রুয়ারি) ভোর রাত সাড়ে ৪টার দিকে টেকনাফ উপজেলার হ্নীলা ইউনিয়নের পশ্চিম লেদা নুরালী পাড়া পাহাড়ে বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটেছে বলে জানিয়েছে র‌্যাব-১৫।

ঘটনাস্থল থেকে ১টি থ্রি-কোয়ার্টার গান, ১টি ওয়ান শুটার গান, ৪টি তাজা কার্তুজ, ৩টি খালি খোসা, ১০০টাকাসহ ১টি মানি ব্যাগ, ১টি মোবাইল, মিয়ানমারের ১১টি এমপিটি সিমকার্ড ও একটি দেশীয় সীমসহ মোবাইল উদ্ধার করা হয়েছে।

র‌্যাব-১৫ এর টেকনাফ ক্যাম্পের কোম্পানী কমান্ডার লে. মির্জা শাহেদ মাহতাব জানিয়েছেন, ‘গোপন সংবাদে র‌্যাব সদস্যরা জানতে পারেন যে ৬/৭জনের একটি অস্ত্রধারি ডাকাতদল টেকনাফের হ্নীলা ইউনিয়নের পশ্চিম লেদা নুরালী পাড়া পাহাড়ে অবস্থান করছে। এমন তথ্যের ভিত্তিতে অভিযানে নামেন র‌্যাব।

এসময় র‌্যাবের উপস্থিতি টের পেয়ে সংবদ্ধ ডাকাতরা র‌্যাবকে লক্ষ্য করে গুলিবর্ষণ করলে র‌্যাবের ল্যান্সনায়েক আজহারুল ইসলাম এবং সিপাহী মো. সোহেল আহত হয়। এরপর র‌্যাব সদস্যরাও সরকারী সম্পদ এবং আত্মরক্ষার্থে কিছুক্ষণ পাল্টা গুলিবর্ষণ করলে ডাকাতরা পালিয়ে যায়।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

nine + six =