জাহাজের সঙ্গে অয়েল ট্যাংকার সংঘর্ষ 2

জাহাজের সঙ্গে অয়েল ট্যাংকার সংঘর্ষ

চট্টগ্রামের কর্ণফুলী নদীর ৩ নম্বর ডলফিন জেটি এলাকায় লাইটার (ছোট) জাহাজের সঙ্গে অয়েল ট্যাংকারের সংঘর্ষে ছড়িয়ে পড়া তেল তুলে নিচ্ছে চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষ।

এ কাজে নিয়োজিত রয়েছে বন্দরের ‘বে ক্লিনার-১ ও ২’, ‘কাণ্ডারী ১০ ও ১১’, দুইটি লেবার বোট। (২৬ অক্টোবর) শনিবার সকাল সাড়ে ১০টা পর্যন্ত নদী থেকে তোলা হয়েছে ৪ হাজার লিটার তেলসহ পানি।

(২৪ অক্টোবর) বৃহস্পতিবার দিনগত রাত দুইটার দিকে মাঝনদীতে লাইটার জাহাজ ‘সিটি ৩৮’ ধাক্কা দিলে ফুটো হয়ে যায় অয়েল ট্যাংকার ‘দেশ-১’। এরপর নদীতে ছড়িয়ে পড়তে থাকে বিদ্যুৎকেন্দ্রে ব্যবহৃত জ্বালানি তেল। দূষিত হয় পরিবেশ।

খবর পেয়ে বন্দরের ‘কাণ্ডারী-৮’ জাহাজের সাহায্যে জাহাজ দুইটি আটক করে। আটক করা হয় দুই জাহাজের মাস্টারসহ তিনজনকে।

বন্দর কর্তৃপক্ষের সচিব মো. ওমর ফারুক বলেন, দুর্ঘটনার পরপরই অয়েল ট্যাংকার থেকে নিঃসরিত জ্বালানি তেল নদী থেকে তুলে নেওয়ার কাজ শুরু করে বন্দরের টিম। ছড়িয়ে পড়া তেল সংগ্রহ করাটাকে আমরা সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিচ্ছি। তিনি জানান, দুর্ঘটনার জন্য দায়ী জাহাজের মালিকের কাছ থেকে ক্ষতিপূরণ ও খরচ আদায় করা হবে।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

4 × 1 =