ধর্ষণের আলামত

ছাত্রী ধর্ষণের আলামত পেয়েছে র‌্যাব-ডিবি

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রী ধর্ষণের ঘটনার আলামত সংগ্রহের খোঁজে নেমেছে র‌্যাব ও পুলিশের গোয়েন্দা শাখার (ডিবি) সদস্যরা। এরই মধ্যে কিছু আলামত খুঁজে পেয়েছেন তারা।

৬ জানুয়ারি (সোমবার) কুর্মিটোলা গলফ ক্লাবের বাহিরের দিকে একটি ঝোপের মধ্যে ধর্ষণের কিছু আলামত পান তারা।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক র‌্যাব সদস্য জানান, ঝোপের মধ্যে ঘড়ি, বিশ্ববিদ্যালয়ে বইসহ কিছু আলামত পেয়েছেন তারা। প্রাথমিকভাবে ধারনা করা হচ্ছে এটিই ঘটনাস্থল। এখানেই ঢাবির মেয়েটিকে ধর্ষণ করা হয়েছে।ছাত্রী ধর্ষণের আলামত পেয়েছে র‌্যাব-ডিবি 1

উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদেরে এ বিষেয়ে জানানো হয়েছে বলেও জানান ওই র‌্যাব সদস্য। তারা আসলে বিস্তারিতভাবে জানানো হবে। রাত থেকে শুরু করে আসপাশের সব এলাকায় খুঁজে এই জায়গাটি সন্দেহ হচ্ছে বলেও জানান ওই র‌্যাব সদস্য।

এছাড়া ডিবি পুলিশের একটি টিম ঘটনাস্থল পর্যবেক্ষন করছেন। তাদের উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা এসে বিস্তারিত জানাবেন বলে জানান তারা।

৫ জানুয়ারি (রোববার) সন্ধ্যায় কুর্মিটোলায় বিশ্ববিদ্যালয়ের বাস থেকে নেমে যাওয়ার পর তাকে তুলে নিয়ে ধর্ষণ করা হয় বলে অভিযোগ করেন ওই ছাত্রী।

তিনি জানান, গতকাল সন্ধ্যা সাড়ে ৫টার দিকে ঢাবির নিজস্ব বাসে রওনা দেন। সন্ধ্যা ৭টার দিকে কুর্মিটোলা বাসস্ট্যান্ডে নামেন। এরপর একজন অজ্ঞাত ব্যক্তি তার মুখ চেপে ধরে সড়কের পেছনে নির্জন স্থানে নিয়ে যান। ধর্ষণের পাশাপাশি তাকে শারীরিক নির্যাতনও করা হয়।

ধর্ষণের একপর্যায়ে তিনি অজ্ঞান হয়ে যান। রাত ১০টার দিকে নিজেকে একটি নির্জন জায়গায় দেখতে পান ওই ছাত্রী। পরে সিএনজি নিয়ে ঢামেকে আসেন। রাত ১২টার দিকে ওই ছাত্রীকে ঢামেক হাসপাতালের ওয়ান-স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে (ওসিসি) ভর্তি করান তার সহপাঠীরা।

ঢাকা সেনানিবাস থানায় মামলা করেছেন ওই ছাত্রীর বাবা।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

7 + fifteen =