প্রতীকী ছবি

ঘুমের ওষুধ খাইয়ে নার্স ধর্ষণ: চিকিৎসক গ্রেফতার

সাতক্ষীরা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ঘুমের ওষুধ খাইয়ে নার্সকে (১৬) ধর্ষণ করার অভিযোগে এক ইন্টার্ন চিকিৎসকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। রিয়াজুল ইসলাম (২৪) নামের ওই চিকিৎসক তাকে কোকাকোলার মধ্যে ঘুমের ওষুধ খাওয়ান। ২৮ ফেব্রুয়ারি, শুক্রবার রাত ৮টার দিকে পুলিশ তাকে গ্রেপ্তার করে।

গ্রেপ্তাকৃত ইন্টার্ন চিকিৎসকের বাড়ি কালিগঞ্জ উপজেলার বন্ধিপুর গ্রামে। আর ভুক্তভোগী নার্সের বাড়ি সাতক্ষীরা সদর উপজেলায়। বর্তমানে তিনি সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

ভুক্তভোগী নার্স জানান, ‌হাসপাতালে কাজ করতে গিয়ে স্যারের সঙ্গে আমার পরিচয় হয়। সে কারণে আমাদের মধ্যে কথা হতো। একপর্যায়ে তিনি আমাকে বিয়ের প্রস্তাব দেন। পরে তার সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। বিভিন্ন সময় তিনি ফোনে কথা বলতেন, আমার মোবাইলে তা রেকর্ড করা আছে।

তিনি আরো জানান, ২৬ ফেব্রুয়ারি, বুধবার রাতে শহরের শিমুল ক্লিনিকের চারতলায় স্যার তার চেম্বারে আমাকে কোকাকোলার মধ্যে ঘুমের ওষুধ খাওয়ান। এরপর জোরপূর্বক আমার সঙ্গে অনৈতিক কাজ করেন এবং আমাকে চারতলা থেকে ফেলে দেয়ার চেষ্টা করেন। ঘটনাটি ক্লিনিকের মালিককে জানার পর সমঝোতা করে দেবেন জানালেও গত দুই দিনে কোনো সমাধান করেননি। এ করাণে আমি থানায় অভিযোগ করেছি।

এ বিষয়ে সাতক্ষীরা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্ত (ওসি) মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, ‘এ ঘটনায় নার্সের অভিযোগে থানায় মামলা হয়েছে। অভিযুক্ত ইন্টার্ন চিকিৎসককে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।’

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

17 − three =