গৃহবধূর মুখে এসিড ঢেলে হত্যা চেষ্টার অভিযোগ 2

গৃহবধূর মুখে এসিড ঢেলে হত্যা চেষ্টার অভিযোগ

লক্ষ্মীপুরে যৌতুকের দাবিতে অন্তঃসত্তা শারমিন আক্তার (২০) নামে এক গৃহবধূকে অমানুষিক নির্যাতনের অভিযোগ উঠেছে তার স্বামীর বিরুদ্ধে।

একপর্যায়ে মুখে ব্যাটারীর এসিড ঢেলে হত্যার চেষ্টা করা হয় বলে অভিযোগ ভুক্তভোগী পরিবারের। আহত গৃহবধূকে লক্ষ্মীপুর সদর হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হয়।

অবস্থার অবনতি হওয়ায় কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে প্রেরণ করেন।

শারমিন পৌরসভার ১২নং ওয়ার্ডস্থ লাহারকান্দি গ্রামের কৃষক মোঃ নুরনবীর মেয়ে।

বর্তমানে নির্যাতিতা গৃহবধূ ৩ মাসের গর্ভবতী বলে জানিয়েছে তার পরিবার।

স্বজনরা জানান, ৩ বছর আগে সদর উপজেলার ভবানীগঞ্জ ইউনিয়নের চরমনসা গ্রামের কালা মিয়ার ছেলে মোঃ আজাদের সঙ্গে শারমিনের বিয়ে হয়। বিয়ের কদিন পর থেকেই আজাদ ও তার মা, বোন শারমিনকে দুই লাখ টাকার জন্য চাপ দিতে থাকেন। শারমিন ও তার পরিবার যৌতুকের বিষয়ে অপরাগতা প্রকাশ করলে তাকে মাঝে মধ্যেই মারধর করতো আজাদ।

সবশেষ গত ২৩ ফেব্রুয়ারি  শারমিনকে শারীরিকভাবে নির্যাতন করা হয়। এক পর্যায়ে হত্যার উদ্দেশ্য জোরপূর্বক মুখে ব্যাটারীর এসিড ঢেলে দেয়।

খবর পেয়ে তাকে উদ্ধার করে সদর হাসপাতালে ও অবস্থার অবনতি হলে নোয়াখালী হাসপাতালে ভর্তি করে স্বজনরা।

দীর্ঘ দিন চিকিৎসা শেষে বাড়ীতে আসলে ২৬ মার্চ আবারও অবস্থার অবনতি ঘটে শারমিনের। পরে লক্ষ্মীপুরের একটি প্রাইভেট হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

এ ঘটনায় লক্ষ্মীপুর মডেল থানায় শারমিনের স্বামী মোঃ আজাদকে প্রধান বিবাদী করে একটি অভিযোগ দায়ের করেন ভুক্তভোগীর পিতা কৃষক মোঃ নুরনবী।

অভিযোগে তার শাশুরি মুর্শিদা বেগম (৫০) ও ননস কাজলী বেগম (৩২) কে বিবাদী করা হয়েছে। এ বিষয়ে জানতে অভিযুক্তদের সাথে যোগাযোগের চেষ্টা করেও পাওয়া যায়নি।

২৯ মার্চ রবিবার দুপুরে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন গৃহবধূ শারমিনের মা তাহেরা বেগম অভিযুক্তদের বিচারের আওতায় এনে শাস্তির দাবি জানিয়ে বলেন, বিবাদীদের ভয়ে দিন কাটাচ্ছি।

গতকাল শনিবার তারা একদল বাড়াটিয়া সন্ত্রাসী দিয়ে আমাদের উপর হামলার চেষ্টা চালায়।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

two × 5 =