কাশ্মীরে ভারতীয় সেনাদের গুলি, নিহত ৬ 2

কাশ্মীরে ভারতীয় সেনাদের গুলি, নিহত ৬

৩৭০ ধারাটি বাতিল করার প্রতিবাদে ক্রোধে ফেটে পড়েছে কাশ্মীর। বুধবার ১৪৪ ধারা ভেঙে শ্রীনগরের রাস্তায় বিক্ষোভে অংশ নিয়েছেন কাশ্মীরের সাধারণ মানুষ। এ সময় ভারতীয় বাহিনীর গুলিতে ৬ জন নিহত হয়েছে।

ভারতের এক সংবাদ মাধ্যম বলছে, বুধবার কাশ্মীরের রাজধানী শ্রীনগর দফায়-দফায় বিক্ষোভ হয়েছে। এসময় বিক্ষোভকারীদের সঙ্গে ভারতীয় সেনাদের সংঘর্ষে হয় বলে খবর পাওয়া গেছে।

বিক্ষোভকারীরা ভারতীয় সেনাদের লক্ষ্য করে ইট পাটকেল ছুড়ে। জবাবে নিরস্ত্র কাশ্মীরিদের ওপর নির্বিচারে গুলি চালায় সেনারা। এতে ছয়জন নিহত ও শতাধিক মানুষ আহত হয়েছেন।

পাকিস্তানের ডন পত্রিকা জানিয়েছে, গুলিবিদ্ধ ওই ছয়জনকে শ্রীনগর হাসপাতালে নেয়ার পর চিকিৎসকরা মৃত ঘোষণা করেন। এছাড়া আহত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন শতাধিক মানুষ। শ্রীনগরে গুলি চালানোর বিষয়টি ভারতীয় কর্মকর্তারা রয়টার্সের সাংবাদিকের কাছে স্বীকার করেছেন।

বিক্ষিপ্ত সংঘর্ষের খবর এসেছে পুঞ্চ, কার্গিল, কুপওয়ারা থেকেও। মোদি সরকারের এই হঠকারী সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে ধীরে ধীরে সড়কে নামতে শুরু করেছেন বিক্ষোভকারীরা। ফলে গ্রেপ্তার হচ্ছেন অগুণিত মানুষ। কেবল বুধবারই আটক করা হয়েছে পাঁচ শতাধিক মানুষকে। ছররার আঘাতে শ্রীনগরের হরি সিংহ হাসপাতালে নতুন করে ভর্তি হয়েছেন ডজনখানেক বিক্ষোভকারী, যাদের মধ্যে বেশ কয়েক জন দৃষ্টিশক্তি হারিয়েছে বলে জানা গেছে।

মোদি সরকারের ৩৭০ ধারা বাতিলের সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে কাশ্মীরি জনতা যাতে বিক্ষোভ জানাতে না পরে এজন্য উপত্যকাটিকে গোটা ভারত থেকে বিচ্ছিন্ন করে রাখা হয়েছে। ইন্টারনেট, মোবাইলসহ বিচ্ছিন্ন করে দেয়া হয়েছে সব ধরনের যোগাযোগ। রোববার রাতেই জারি করা হয়েছে ১৪৪ ধারা এবং বন্দি করা হয়েছে খোনকার প্রধান প্রধান রাজনৈতিক নেতাদের। এই মুহূর্তে ভারত নিয়ন্ত্রিত জম্মু-কাশ্মীর বিশ্বের সবচেয়ে সামরিকীকৃত এলাকায় পরিণত হয়েছে।

সেনাবাহিনী, আধা-সামরিক বাহিনী ও পুলিশ সদস্য মিলিয়ে সেখানে ৭ লক্ষাধিক নিরাপত্তাবাহিনীর সদস্য মোতায়েন রয়েছে ভারত। অস্থায়ী কারাগার বানানো হয়েছে হোটেল, গেস্ট হাউস, সরকারি ও বেসরকারি বিভিন্ন ভবনকে। আজ পরিস্থিতি এমন যেন গোটা কাশ্মীর উপত্যকাই যেন আস্ত এক কারাগার।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

2 × 3 =