করোনার ভয়ে লাঠি দিয়ে মালাবদল! 2

করোনার ভয়ে লাঠি দিয়ে মালাবদল!

করোনার হানা থেকে বাঁচতে চলছে লকডাউন। এর মধ্যেই কোথাও কোথাও বিয়ে সেরে নিচ্ছেন অনেকেই।

সেখানে নিষ্ঠার সঙ্গে সামাজিক দূরত্ব মেনে চলার ছবিও যেমন উঠে আসছে, তেমনই এমন দৃশ্যও সামনে আসছে যা দেখলে মনে হবে, এ নিছক লোক দেখানো।

এমনই এক বিয়ের ভিডিও দেখে সে কথাই বলছেন নেটিজেনরা। ভিডিওটি এক সাংবাদিক টুইট করেছেন। সাংবাদিক চিত্রা ত্রিপাঠী শনিবার (২ মে) তার ভেরিফায়েড টুইটার হ্যান্ডলে ভিডিওটি পোস্ট করেছেন। দেখা যাচ্ছে, এক মন্দিরে বিয়ের আয়োজন করা হয়েছে। যেখানে অনেকেই মাস্ক পরে রয়েছেন, আবার অনেকেরই আবার নাক-মুখ খোলা রেখেই সেখানে উপস্থিত। কিন্তু আসল ‘নাটক’ এরপর শুরু হয়। ফুট তিন-চারেকের দূরত্বে দাঁড়িয়ে বর-কনে। প্রথমে কনে দু’হাতে দুটি লাঠির ডগায় মালা নিয়ে তা বরের গলায় পরিয়ে দিচ্ছেন। এরপর কনের গলায় মালা দেওয়ার পালা। এতক্ষণ দেখে মনে হচ্ছিল, পরস্পরের ছোঁয়া এড়িয়েই মনে হয় এই বিয়ে সম্পন্ন হবে। কিন্তু সেই ধারণা ভাঙতে বেশি সময় লাগে না।

বরের গলায় মালা দেওয়ার রীতি সম্পন্ন করার জন্যে কনেকে সাহায্য করতে দু’দিক থেকে দু’জন এগিয়ে আসেন।

মালাবদলের লাঠি নিজের হাতে নিতে এগিয়ে আসেন বরও। সব মিলিয়ে মোট চারজন এক সঙ্গে সেই লাঠির সাহায্যে মালা বদলে সাহায্য করতে উদ্যত হন। আর একটা সময় চারজনই খুব কাছে চলে আসেন। ফলে দূরত্ব বজায় রেখে মালা বদলের চেষ্টা শেষ পর্যন্ত ‘টিকটক ভিডিও’ হয়েই রয়ে যায়, সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখা আর সম্ভব হয়নি।

এর ফলে করোনাভাইরাস সংক্রমণ হয়েছে কিনা তা জানা যায়নি, তবে ভিডিওটি ভাইরাল হয়েছে। এক সাংবাদিক ভিডিওটি পোস্ট করে মজার ছলেই প্রশ্ন ছুড়ে দিয়েছেন, একটু বাড়াবাড়ি হয়ে গেল না?

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

one × 3 =