করোনার উপসর্গ নিয়ে চুনারুঘাটে মারা গেলেন বৃদ্ধ 2

করোনার উপসর্গ নিয়ে চুনারুঘাটে মারা গেলেন বৃদ্ধ

হবিগঞ্জ জেলার চুনারুঘাট উপজেলার পানছড়ি আশ্রয়ন প্রকল্পে করোনার উপসর্গ নিয়ে এক বৃদ্ধ মারা গেছেন।

সোমবার সকাল ৯ টায় ঐ বৃদ্ধ তার ঘরে মারা যান।

মারা যাওয়া বৃদ্ধ শাহনুর মিয়া (৭০) দীর্ঘদিন শ্বাসকষ্ট, সর্দিঁজ্বর রোগে ভুগছিলেন বলে এলাকাবাসী জানিয়েছে। তার মৃত্যুর খবর এলাকায় ছড়িয়ে পড়লে এলাকাজুড়ে আতঙ্কের সৃষ্টি হয়।

এলাকাটি লকডাউন করতে প্রশাসনের কাছে দাবি জানিয়েছেন এলাকাবাসী।

এদিকে এ ঘটনার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে ছুটে যান সহকারি কমিশনার মিল্টন পাল, অফিসার ইনচার্জ শেখ নাজমুল হকসহ পুলিশের একটি টিম। এর আগেই ঘটনাস্থলে যান স্বাস্থ্য বিভাগের মেডিকেল টিম।

মেডিকেল টিম নিহতের নমুনা সংগ্রহ করে তা আজ সিভিল সার্জনের মাধ্যমে ঢাকায় পাঠিয়েছে বলে
জানিয়েছেন উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডাঃ মোজাম্মেল হোসেন।

এদিকে উপজেলা প্রশাসন আশ্রয়ন প্রকল্পের ২৪২টি পরিবারের চলাচল সীমিত করে পানছড়ি বাজারটি বন্ধ করে দিয়েছেন। এছাড়া আশপাশের বাড়ি ঘরের সবাইকে সাবধানে চলার নির্দেশ দিয়েছেন। বিকেল ৫টায় উপজেলা ও পুলিশ প্রশাসনের উপস্থিতিতে কঠোর নিরাপত্তায় নিহত বৃদ্ধকে দাফন করা হয়।

ইউপি চেয়ারম্যান ফজলুর রহমান তরফদার সবুজ জানান, নিহত বৃদ্ধ শাহনুর মিয়া পানছড়ি আশ্রয়ন প্রকল্পে বসবাস করতেন এবং পরিবারের ৪ সদস্যকে নিয়ে ভিক্ষা করে জীবিকা নির্বাহ করতেন।

তিনি জানান, শাহনুর মিয়া দীর্ঘদিন যাবত শ্বাসকষ্ট রোগে ভুগছিলেন। তার মুল বাড়ি হবিগঞ্জের আজমিরিগঞ্জ উপজেলার জলসুখা গ্রামে বলেও তিনি জানান। ভুমিহীন হিসেবে তিনি আশ্রয়ন প্রকল্পে
বসবাস করছিলেন।

এবিষয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সত্যজিত রায় দাশ জানান, শ্বাসকষ্টজনিত কারণে তিনি মৃত্যুবরণ করেছেন। তবে এলাকাবাসী দাবি করছেন জ্বর, সর্দি কাশিসহ করোনাভাইরাসের বিভিন্ন উপসর্গ ছিল তার মধ্যে। তিনি জানান, আশ্রয়ন প্রকল্পের ২৪২টি পরিবারের সদস্যদের চলাচল সীমিত করা হয়েছে এবং
পানছড়ি বাজার বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।

তিনি জানান, মেডিকেল টিম নমুনা সংগ্রহ করে ঢাকায় পাঠিয়েছে। রিপোর্ট আসার পর অবস্থা বুঝে প্রয়োজনীয়
ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

two × five =